স্টোরেজ ডিভাইস কি ? স্টোরেজ ডিভাইস কয় প্রকার ? ( what is storage device in Bengali)

 আপনারা যারা মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করেন তারা কিন্তু স্টোরেজ ডিভাইস নামটা শুনছেন । আজকের পোস্টে আলোচনা করব স্টোরেজ ডিভাইস কি (storage device meaning) ? এটি কয় প্রকার ও কি কি ? 



স্টোরেজ ডিভাইস কি ? স্টোরেজ ডিভাইস কয় প্রকার


স্টোরেজ ডিভাইস কি ? (what is storage device) 


 স্টোরেজ ডিভাইস মানে হচ্ছে কোন কিছু স্টোর কোরে রাখা। অর্থাৎ স্টোরেজ ডিভাইস হলো এক ধরনের হার্ডওয়ার কম্পনেন্টস  যেখানে সমস্ত ডেটা গুলো আমরা সেভ করতে পারি temporary অথবা permanently। একটি কম্পিউটারের হার্ডওয়ার এর গুরুত্বপূর্ণ অংশ।



 স্টোরেজ ডিভাইস কয় প্রকার ও কি কি (Types of storage device) : 


স্টোরেজ  ডিভাইস মূলত দুই প্রকার।


           ১. primary storage device

           ২. Secondary storage device



প্রাইমারি স্টোরেজ ডিভাইস (primary storage device) : 


প্রাইমারি স্টোরেজ ডিভাইস এর উদহারন হলো Ram (random access memory) | ram হলে কম্পিউটারের একটি অস্থায়ী মেমোরি কম্পিউটার যখন অন থাকবে ram এ তখন সমস্ত তথ্য সমূহ সংরক্ষিত থাকবে , আর কম্পিউটার অফ থাকলে ram সমস্ত তথ্যসমূহ মুছে ফেলে।


সেকেন্ডারি  স্টোরেজ ডিভাইস (secondary storage device) : 


সেকেন্ডারি স্টোরেজ ডিভাইস হলো এমন এক ধরনের ডিভাইস যেখানে আপনি কম্পিউটার বা মোবাইল অন অথবা অফ অবস্থায় যেকোনো ডাটা স্থায়ীভাবে রাখতে পারবেন এবং আপনি নিজের ইচ্ছামত সেইগুলোকে পরবর্তীকালে মুছে ফেলতে পারেন। secondary storage device এর উদাহরণ হল , Solid-state drives (SSDs), Hard disk drives (HDDs), cloud storage, CD rom drives, DVD drives, SD card ইত্যাদি।


আরও পড়ুন :

. মোবাইল ব্যাংকিং কি ? এর সুবিধা ও অসুবিধা কি ?

গ্রাফিক্স কার্ড কি ?  এটি কিভাবে কাজ করে ?



প্রাইমারি  স্টোরেজ ডিভাইস এবং সেকেন্ডারী স্টোরেজ ডিভাইস এর পার্থক্য :


  ১. প্রাইমারি স্তরেজ ডিভাইস সরাসরি সিপিইউ এর সঙ্গে কানেক্ট থাকে এবং অ্যাকসেস করতে পারে আর সেকেন্ডারি স্টোরেজ ডিভাইস সরাসরি সিপিইউ এর সঙ্গে কানেক্ট থাকে না


  ২. প্রাইমারি স্টোরেজ ডিভাইসের পরিবর্তনশীল কিন্তু সেকেন্ডারি স্টোরেজ ডিভাইস পরিবর্তনশীল নয়


 ৩. প্রাইমারি স্তরেজ ডিভাইস আকারে ছোট হয় আর সেকেন্ডারি স্টোরেজ ডিভাইস তুলনামূলকভাবে বড় হয়


 ৪. প্রাইমারি স্টুডেন্ট ডিভাইস এর উদাহরণ হল ram আর সেকেন্ডারি স্টোরেজ ডিভাইস এর উদাহরণ হল SSD, HDD, SD CARD ইত্যাদি



আশা করি আপনারা স্টোরেজ  ডিভাইস এর বিভিন্ন খুঁটনাটি বিষয় গুলো বুঝতে পেরেছেন।


আর আপনাদের কোন কিছু বুঝতে অসুবিধা হলে নিচে কমেন্ট করতে পারেন আর আপনারা কোন ধরনের আর্টিকেলস চান সেটাও আমাকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ধন্যবাদ।








3 Comments

Please do not enter any spam link in the comment box.

Post a Comment
Previous Post Next Post

Ads

Ads