অপারেটিং সিস্টেম কাকে বলে ? অপারেটিং সিস্টেম কত প্রকার ও কি কি ? (Operating system in Bengali)

 আমরা কিন্তু প্রায় প্রত্যেকেই operating system এই নামটা শুনেছি । প্রত্যেকটি কম্পিউটারে বা মোবাইলে অপারেটিং সিস্টেম অতি আবশ্যক।  কম্পিউটারে অপারেটিং সিস্টেম না থাকলে সেই কম্পিউটার আমরা ব্যবহার করতে পারি না।


আমাদের কম্পিউটারে যত ধরনের হার্ডওয়ার রয়েছে যত ধরনের সফটওয়্যার রয়েছে অর্থাৎ এক কথায় বলা যেতে পারে কখন কোন হার্ডওয়ার কে বা কখন কোন সফটওয়্যার কে কিভাবে কেন কিসের জন্য run করাতে হবে এই সমস্ত কাজটাই করে থাকে OS বা অপারেটিং সিস্টেম।

      
অপারেটিং সিস্টেম কাকে বলে ? অপারেটিং সিস্টেম কত প্রকার ও কি কি ?
Operating system kake bole


তো আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব 
অপারেটিং সিস্টেম কাকে বলে এবং এর কাজ কি (operating system ki bangla), অপারেটিং সিস্টেম এর উদাহরণ ইত্যাদি বিষয়। আপনি যদি এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়েন তাহলে OS সম্পর্কে আপনারা বিস্তারিত ধারণা পেয়ে যাবেন। চলুন তাহলে জেনে নেই অপারেটিং সিস্টেম বলতে কি বুঝায়


আরও পড়ুন : ইন্টারনেট কি?

অপারেটিং সিস্টেম কি (what is operating system in Bengali)

অপারেটিং সিস্টেম হল এমন এক ধরনের সফটওয়্যার যা কম্পিউটার হার্ডওয়ার এবং ব্যবহারকারীর মধ্যে ইন্টারফেস (interface) হিসেবে কাজ করে। operating system পুরো কম্পিউটার সিস্টেমকে পরিচালনা করে অর্থাৎ operate করে। এর জন্য অপারেটিং সিস্টেম কি কম্পিউটারের আত্মা বলা হয় ইংরেজিতে soul of the computer system বলা হয়।


আরও পড়ুন : হার্ডডিস্ক কি?

অপারেটিং সিস্টেম কাকে বলে (operating system meaning in Bengali)


অপারেটিং সিস্টেম সংজ্ঞা : যে সিস্টেম সফটওয়্যার (system software) হার্ডওয়ার সফটওয়্যার ব্যবহারকারীর মধ্যে যোগসূত্র তৈরি এবং কম্পিউটারের সমস্ত কার্যক্রম পরিচালনা করে তাকে অপারেটিং সিস্টেম বলে।


আরও পড়ুন : হার্ডওয়্যার কি ? 


অপারেটিং সিস্টেম এর উদাহরণ 


কিছু জনপ্রিয় operating system এর উদাহরণ হল 


            • Microsoft windows

            • Linux

            • MacOS

            • IOS

            • Android ইত্যাদি।



অপারেটিং সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য 


অপারেটিং সিস্টেম এর বৈশিষ্ট্যগুলো নিচে আলোচনা করা হলো


অপারেটিং সিস্টেম বা OS তাহলে একটা সিস্টেম সফটওয়্যার।


কম্পিউটার সিস্টেমের সমস্ত কাজ কিভাবে পরিচালনা করতে হবে তা অপারেটিং সিস্টেমের প্রোগ্রামে করা থাকে।


Operating System কম্পিউটার হার্ডওয়ার এবং ব্যবহারকারীর মধ্যে যোগসূত্র তৈরি করে।


প্রত্যেকটি কম্পিউটারে প্রথমে অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করতে হয় কারণ OS ছাড়া কম্পিউটারে কাজ করা সম্ভব নয়।


OS কম্পিউটারের বিভিন্ন ধরনের resource এবং information কে সুরক্ষা প্রদান করে।


সমস্ত অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার ক চালানোর দায়িত্ব operating system এর।


অপারেটিং সিস্টেম এর কাজ  (function of operating system in Bengali)


চলুন অপারেটিং সিস্টেমের কাজ কি এ বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করি।


1. Memory Management 

মেমোরি মানেজমেন্ট হল operating system একটি function যা primary memory কে পরিচালনা করে। মেমোরি মানেজমেন্ট প্রতিটি মেমোরির অবস্থান ট্র্যাক করে এবং কোন প্রক্রিয়ার জন্য কত মেমোরি consume হবে তা operating system সিদ্ধান্ত নেই।


2. Process Management 

প্রসেসর ম্যানেজমেন্ট হল কম্পিউটারে প্রসেস কি ম্যানেজ করো। যখন কম্পিউটারে আপনি একাধিক কাজ করবেন যেমন ব্রাউজারে আপনি কোন কাজ করছেন এবং সেই সাথে আপনি টাইপিং করার জন্য ওয়ার্ড প্যাডে কাজ করছেন ,গান শোনার জন্য আপনি ভিডিও প্লেয়ার ওপেন করেছেন তো এই এই কাজ গুলো সঠিকভাবে করে প্রসেসর ম্যানেজমেন্ট। কম্পিউটারে কোন কাজের জন্য প্রসেসর কতক্ষণ কাজ করবে এ সমস্ত কাজগুলো করে থেকে OS ।


3.Device Management 

আপনার কম্পিউটারে যে external device গুলো আছে যেমন কিবোর্ড, মাউস, স্পিকার, প্রিন্টার  এই ডিভাইস গুলোকে ম্যানেজ করার কাজ হল অপারেটিং সিস্টেমের। অর্থাৎ কম্পিউটার সিস্টেমের যতগুলো ইনপুট আউটপুট ডিভাইস রয়েছে তাদের সাথে communication কাজ করে OS ।


4. File Management 

কম্পিউটারের হার্ডডিক্স এর যতগুলো ফাইল সেভ রয়েছে , যত ডাটা রয়েছে এছাড়া ফাইল সেভ করা, কপি করা সমস্ত কাজ এই অপারেটিং সিস্টেম থেকে হয়।


5. Security 

অপারেটিং সিস্টেম কম্পিউটারের সুরক্ষা প্রদানের সাহায্য করে। কম্পিউটারের যেকোন ধরণর Virus, Malware , Hacker এর হাত থেকে রক্ষা করে অপারেটিং সিস্টেম। আপনার কম্পিউটারে যদি অটোমেটিক ভাইরাস চলে আসে অপারেটিং সিস্টেম কিন্তু সেটি কি রুখে দেই।


আরও পড়ুন : 

 মাদারবোর্ড কি?

প্রসেসর কি?

 


অপারেটিং সিস্টেম কত প্রকার ও কি কি (Types of operating system in Bengali)


চলুন তাহলে অপারেটিং সিস্টেম এর প্রকারভেদ গুলো বিস্তারিত আলোচনা করি।

 

1. Batch Operating System 

এই অপারেটিং সিস্টেমটি বর্তমানে আর ব্যবহার হয় না অনেক আগেই এই OS টি ব্যবহার করা হতো । বিশেষ করে মেইনফ্রেম কম্পিউটার এ এই অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হতো। এই operating system গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হলো ইউজার এবং কম্পিউটারের মধ্যে সরাসরি কোন যোগাযোগ ছিল না।


2. Multiprogramming Operating System

অনেক প্রোগ্রাম যখন একসাথে CPU দ্বারা execute হয় তখন তাকে মাল্টিপ্রোগ্রামিং অপারেটিং সিস্টেম বলে। অর্থাৎ   multiprogramming operating system এর কাজ হল একটি কম্পিউটারে একসাথে অনেক প্রোগ্রাম পরিচালনা করা।


3. Multiprocessing Operating system 

Multiprocessing নাম শুনে হয়তো আপনারা বুঝতে পারছেন এর মানে কি এর অর্থ হলো অনেকগুলো প্রসেসর। অর্থাৎ একাধিক প্রসেসর ব্যবহার করে কম্পিউটারে কাজ দ্রুত করার জন্য এ ধরনের প্রসেসর গুলো ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এবং এক বা একাধিক central Processing unit (CPU) নাকি কম্পিউটার সিস্টেমে অবস্থান করে।


4. Real Time Operating System

real-time অপারেটিং সিস্টেম খুব অল্প সময়ের মধ্যে ইনপুট গুলোকে Process process প্রতিক্রিয়া জানাতে পারে। এই ধরনের অপারেটিং সিস্টেমে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রক্রিয়াকরণ আবশ্যক না হলে এই সিস্টেম ব্যর্থ হবে। রিয়েল টাইম অপারেটিং সিস্টেম এর উদাহরণ হল Airline traffic control systems, Network multimedia system, Robot ইত্যাদি।


5. Distributed Operating System

যে অপারেটিং সিস্টেম একাধিক কম্পিউটার সিস্টেমের মধ্যে Communication অর্থাৎ নিয়ন্ত্রণ করা হয় তাকে ডিস্ট্রিবিউটেড অপারেটিং সিস্টেম বলে। এক বা একাধিক কম্পিউটার সিস্টেমের মধ্যে একটি টি অপারেটিং সিস্টেম কাজ করে এবং তাদের মধ্যে communities করে। কম খরচে এই ধরনের অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়।


6. Time Sharing Operating System

Time Sharing মানে হচ্ছে টাইম শেয়ার করা। তো এই ধরণের অপারেটিং সিস্টেমের কাজ হল CPU প্রত্যেক ব্যবহারকারীকে টাইম নির্ধারণ করা।


FAQ


1. ৩ টি অপারেটিং সিস্টেমের নাম ?

উত্তর : Linux OS, windows OS, MacOS


2. অপারেটিং সিস্টেম কোন ড্রাইভে থাকে ?

উত্তর : Operating system সি ড্রাইভে থাকে।


3.প্রথম অপারেটিং সিস্টেমের নাম কি ?

উত্তর : UNIX


4. পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম কোনটি ?

 উত্তর : Windows 95



আশা করি আপনারা অপারেটিং সিস্টেম বলতে কি বুঝায় এই বিষয়টি বুঝতে পারলেন। 


তো আমরা আজকের আর্টিকেল থেকে জানলাম কম্পিউটার অপারেটিং সিস্টেমের মৌলিক ধারণাবিভিন্ন প্রকার অপারেটিং সিস্টেমের তালিকা তৈরি কর ও OS সম্পর্কে বিস্তারিত খুঁটিনাটি বিষয়।


তো আপনাদের এই আর্টিকেলটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদেরকে শেয়ার করতে পারেন এবং আপনারা কোন ধরনের আর্টিকেল চান সেটা আমাকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ধন্যবাদ।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url